21 C
Bangladesh
সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪

বিশ্ববিদ্যালয় পাঠ্যক্রমে নৈতিক শিক্ষা ‍যুক্ত করার আহ্বান ইউজিসির

শিক্ষাবিশ্ববিদ্যালয় পাঠ্যক্রমে নৈতিক শিক্ষা ‍যুক্ত করার আহ্বান ইউজিসির

শিক্ষার্থীদের মধ্যে নৈতিকতার চরম অভাব দেখা দিচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মূল্যবোধের অবক্ষয় রুখতে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রমে নৈতিক শিক্ষার বিষয়টি ‍যুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্চুরী কমিশন (ইউজিসি)। একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক চর্চার পরিবেশ নিশ্চিত করার পরামর্শ দিয়েছে ইউজিসি।

সিটিজেন চার্টার বিষয়ে স্টেকহোল্ডারদের অবহিতকরণ কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ইউজিসি চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম আজ এ আহ্বান জানান।

ইউজিসি সচিব ড. ফেরদৌস জামানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় কমিশনের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিভাগের পরিচালক মো. ওমর ফারুখ, উপ-পরিচালক, সিনিয়র সহকারী পরিচালকসহ ২৫ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিটিজেন চার্টারের ফোকাল পয়েন্ট ও দৈনিক বণিক বার্তার নিজস্ব প্রতিবেদক সাইফ সুজন অংশগ্রহণ করেন। কমিশনের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সিনিয়র সহকারী পরিচালক ও সিটিজেন চার্টারের ফোকাল পয়েন্ট মো. ইউসুফ আলী খান কর্মশালা পরিচালনা করেন।

আরো পড়ুন:  স্কাউটের সর্বোচ্চ অ্যাওয়ার্ড ‘রৌপ্য ব্যাঘ্র অ্যাওয়ার্ড' পেলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

অনুষ্ঠানে প্রফেসর দিল আফরোজা বেগম বলেন, সাম্প্রতিককালে প্রাথমিক থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায় পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধের অবক্ষয় পরিলক্ষিত হচ্ছে। ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্ক অভিভাবকতুল্য ও বন্ধুসুলভের পরিবর্তে বৈরি ভাব বিরাজ করছে। শিক্ষার্থীদের নৈতিক অধঃপতন ঠেকাতে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রমে নৈতিক শিক্ষার বিষয়টি ‍যুক্ত করা জরুরি। পাশাপাশি বিভাগের সহশিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের আচরণের বিভিন্ন দিক মূল্যায়নে কোর্স শিক্ষকরা নম্বর বরাদ্দের ব্যবস্থা করতে পারেন।

আরো পড়ুন:  অস্ট্রেলিয়ার বন্ড ইউনিভার্সিটিতে আন্ডারগ্র‍্যাজুয়েট স্কলারশিপ 

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীরা কেন সহিংস আচরণ করছে, আচরণের বিচ্যুতি বা কেন ঘটছে সেটি শিক্ষকদের খতিয়ে দেখতে হবে। শিক্ষার্থীদের কাউন্সিলিং সেবা নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য সব বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন মনোবিজ্ঞানী বা ছাত্র উপদেষ্টা নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে।

আরো পড়ুন:  প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ২৮ জুন থেকে

বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে সাংস্কৃতিক চর্চা হয় না উল্লেখ করে তিনি বলেন, অনেক বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষার্থীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন কিংবা অংশগ্রহণ করাকে পড়ালেখার ক্ষতি বলে মনে করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্ত চিন্তার বিকাশের পরিবেশ তৈরি এবং সাংস্কৃতিক চর্চা বৃদ্ধিতে পদক্ষেপ গ্রহণে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতি তিনি উদাত্ত আহ্বান জানান।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles