27 C
Bangladesh
শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪

ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়

বাংলাদেশে এখন উদ্যোক্তার সংখ্যা বাড়ছে ধীরে ধীরে। উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন অনেকেই। অনেকেই এখন চাকরির পিছনে না ঘুরে হচ্ছেন উদ্যোক্তা। আধুনিক যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে অন্যান্য দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন তারা। ঘরে বসে উপার্জন করছেন মাসে লক্ষাধিক টাকা।ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন অনেকেই।
তার মধ্যে ব্যতিক্রমী এক নাম রকি রায়।যিনি প্রথমে উদ্যোক্তা হয়েছেন এবং পরবর্তীতে শতাধিক তরুণকে উদ্যোক্তা তৈরি করতে কাজ করছেন দীর্ঘদিন যাবৎ। তার মূলমন্ত্র হলো ‘নিজে উদ্যোক্তা হও,অন্যকে উদ্যোক্তা তৈরিতে সাহায্য করো’।ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
রকি রায় বর্তমানে তরুণ উদ্যোক্তাদের কাছে সুপরিচিত এবং জনপ্রিয় নাম।তিনি রকি টেক এবং মার্কেটোগাইস ডিজিটাল এজেন্সি এর প্রধান উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা ।তিনি একজন বিপণনকারী,উদ্যোক্তা এবং প্রভাবক।
রকি টেক এর মাধ্যমে তরুণ উদ্যোক্তাদের টেক রিলেটেড সকল সমস্যার সমাধান দিয়ে থাকেন তিনি এবং মার্কোটগাইজ ডিজিটাল এজেন্সির মাধ্যমে তাদের কাজের ব্যবস্থা করে দিয়ে আসছেন দীর্ঘদিন যাবৎ। উদ্যোক্তা তৈরিতে প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে হাজারো তরুণদের। আইটি সেক্টরের যেকোনো সমস্যায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে সহজেই মিলে সেসব সমস্যার প্রতিকার।
তিনি খুব অল্প বয়সে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্লগিং,ব্লগ সম্পর্কিত সব কলাকৌশল শিখে সময়ের জনপ্রিয় একজন সফল ব্লগার। এই উদ্যোক্তার নেতৃত্বে কাজ করছেন শতাধিক তরুণ। যার ফলে শতাধিক তরুণের কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়েছে। তারা এখানে কাজ আয় করছে প্রতিনিয়ত।ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
রকি রায়ের প্রতিষ্ঠানটি যেমন শতাধিক তরুণের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করেছে তেমনি প্রতিনিয়ত খুব সহজে গ্রাহকরা পাচ্ছেন তাদের নিদিষ্ট সেবা। এছাড়াও এখান থেকে যারা উদ্যোক্তা হচ্ছেন তারাও প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন নতুন তরুণ উদ্যোক্তাদের। ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
আইটি সেক্টরের ভালোবাসা শৈশব থেকেই।২ জি এর যুগ থেকেই কাজ করছেন ইন্টারনেট নিয়ে। তাইতো হাঁটছেন নিজের পছন্দের এই পথে। তার প্রধান লক্ষ্য এখন তার বেকার তরুণদের জন্য কর্মস্থল তৈরি। তিনি বাংলাদেশের বেকারত্ব দূর করার জন্য ও কাজ করছেন দীর্ঘদিন যাবৎ। যা যেমন বাংলাদেশের বেকারত্ব কমাবে পাশাপাশি দেশের অর্থনৈতিক ভূমিকা পালন করবে।
গ্রাহকদের দুই শতকেরও বেশি আইটি সেবা দিয়ে আসছে তার এই প্রতিষ্ঠানটি। ওয়েবসাইট থেকে শুরু করে অ্যাপ্লিকেশন’সহ এই প্রতিষ্ঠান কাজ করছে মার্কেটিংয়ের নানান বিষয় নিয়ে। যেখানে রয়েছে দেশী বিদেশি নিয়মিত গ্রাহক।ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
তবে তার শুরুটা সহজ ছিল না। রকি রায়ের জন্ম সুনামগঞ্জ জেলায়। গ্রামেই বেড়ে উঠে সে তারপর থেকে পড়াশোনার প্রতি মনোযোগ দিয়ে এস এস সি শেষ করে ভর্তি হন সিলেট পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে কম্পিউটার ডিপার্টমেন্ট-এ। তার আগে থেকেই ইন্টারনেট নিয়ে কাজ করতেন তবে উদ্যোক্তা হওয়ার উদ্দেশ্যে রকি ২০১৯ সালে শেখ কামাল আইটি এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার এর অধীনে ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করে । তার পর থেকে কোর্স শেষ করে কাজ ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে এবং উদ্যোক্তা তৈরিতে।ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
রকি রায় বলেন, দিনদিন প্রযুক্তি নির্ভর হচ্ছে সকল খাত। তাই প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে তরুণদের দক্ষ উদ্যোক্তা তৈরি করতে চাই। তারাই একসময় বাংলাদেশের অর্থনীতে বিরাট অবদান রাখবে। লক্ষ্য একটাই পড়াশোনার পাশাপাশি তরুণরা যেন আয় করতে পারে ডিজিটাল প্লাটর্ফম, স্বপ্নটা এমনই।ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন রকি রায়
রকি এখন তার কাজ দিয়ে ইতিমধ্যেই তরুণদের আইডল হয়ে গিয়েছেন। তাকে দেখে অনেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে কাজ করছেন আইটি সেক্টরে। শিখছেন কাজ। তারাও রকি রায়ের মতো বাংলাদেশের অর্থনীতিতে রাখতে চান ভূমিকা।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles