30 C
Bangladesh
শনিবার, জুন ৮, ২০২৪

জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীলদলের (একাংশের) নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। কার্যনির্বাহী এ কমিটিতে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন রসায়ন বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. নাফিস আহমদ।
জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
সোমবার নীলদল কার্যনির্বাহী পর্ষদ নির্বাচন-২০২২ এর প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড. মো. সৈয়দ আলম এ ফল ঘোষণা করেন। নির্বাচনে কোনো পদেই বিরোধী প্রার্থী না থাকায় সংগঠনটির গঠনতন্ত্রের ৬ নং ধারা অনুযায়ী প্রার্থীদের বিনাপ্রতিদ্বীতায় নির্বাচিত ঘোষনা করা হয়েছে।
জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
মোট ১১ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটিতে সদস্যরা হলেন প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবদুল আলীম, ফিন্যান্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ছগীর হোসেন খন্দকার, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক মো. মিজানুর রহমান, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. কামাল হোসেন।
জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
এছাড়াও সংগীত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. ঝুমুর আহমেদ, গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মোজাম্মেল হক, চারুকলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ইমাম হোসেন, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক দেওয়ান বদরুল হাসান এবং সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কে. এম. সুজাউদ্দিন বিনা ভোটে সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।
জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কার্যনির্বাহী পর্ষদ এর প্রথম সভায় সদস্যগণের মধ্য হতে সহ-সভাপতি, কোষাধ্যক্ষ ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাচিত করা হবে।
জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
কার্যনিবার্হী পর্ষদ নির্বাচনে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এ. এম. এম. গোলাম আদম ও মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শামীমা আক্তার কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
জবি নীলদলের সভাপতি জাকির,সা.সম্পাদক নাফিস
চলতি বছরের ২রা জুলাই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদলের কার্যনির্বাহী পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০২২-২০২৩ মেয়াদকালের জন্য গঠনতন্ত্র মোতাবেক একটি নির্বাচন পরিচালনার জন্য একটি কমিশন গঠন করা হয়। কমিশনকে ৩১ জুলাইয়ের ম মধ্যে তাদের কার্যক্রম সম্পন করা জন্য বলা হয়। তবে নির্বাচন কমিশন এর আবেদনের প্রেক্ষিতে ১২ দিন সময় বর্ধিত করা হয়।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles