30 C
Bangladesh
রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪

দশম ব্যাচকে ১-০ গোলে হারিয়ে ‘ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২’এর চ্যাম্পিয়ন হল নবম ব্যাচ

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়দশম ব্যাচকে ১-০ গোলে হারিয়ে ‘ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২’এর চ্যাম্পিয়ন হল নবম ব্যাচ

মার্কেটিং বিভাগের আন্তঃব্যাচ ফুটবল টুর্নামেন্ট ‘ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২’ এর ফাইনাল ম্যাচে দশম ব্যাচকে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নবম ব্যাচ। মঙ্গলবার (১৬আগস্ট) বিকাল সাড়ে চারটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয়  খেলার মাঠে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়।

টুর্নামেন্টে ‘ম্যান অব দ্যা টুর্নামেন্টʼ নির্বাচিত হোন নবম ব্যাচের শাহেদ মাহিন।

ফাইনাল ম্যাচটির পুরোটা সময় ছিল খেলার মাঠটি ছিল দর্শকে পরিপূর্ণ, সাথে ছিল দর্শকদের উন্মাদনা। খেলোয়াড়দের মধ্যে তীব্র প্রতীদ্বন্দিতা  পরিপূর্ণ। দশম ব্যাচ বিভাগের কণিষ্ঠ ব্যাচ হলেও নবম ব্যাচকে দেয়নি এক বিন্দুও ছাড়। প্রথমার্ধে দশম ব্যাচ একটি পেনাল্টি শুটের সুযোগ পেলেও নবম ব্যাচের গোলরক্ষক ইমতিয়াজ আহমেদ গোল ঠেকাতে সমর্থ হন। ফলে গোল দিতে ব্যর্থ হন দশম ব্যাচ।

খেলার প্রথমার্ধে নবম ব্যাচ বারবার অ্যাটাক করে, কিন্তু দশম ব্যাচের ডিফেন্ডার এবং গোলকিপার শক্তভাবে গোল আটকানোর যথাসাধ্য চেষ্টা করেন। দ্বিতীয়ার্ধে ডি-বক্সের ভেতর দশম ব্যাচের একজন প্লেয়ারের হাতে বল লাগায় নবম ব্যাচও একটি প্যানাল্টি শুটের সুযোগ পায়। প্যানাল্টি শুটের দ্বায়িত্ব নেন নবম ব্যাচের ক্যাপ্টেন সজিবুর রহমান দিপু। কিন্তু এইবার দশম ব্যাচের মত কোন ভুল করেননি দিপু। এই গোলের মাধ্যমে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় নবম ব্যাচ। বাকিটা সময় দুই দলের মধ্যেই পাল্টা পাল্টি আক্রমণ হলেও আর কোনো গোলের দেখা পাননি দুই দলের খেলোয়াড়রা। ফলে ১-০ গোলের জয় নিয়ে ‘ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২’ এর চ্যাম্পিয়ন হয় বিভাগের নবম ব্যাচ।
খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন দল এবং রানার্স আপ দলের  মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন মার্কেটিং বিভাগের চেয়ারম্যান বঙ্কিম চন্দ্র সরকার, লেকচারার সায়মা আক্তার এবং বিভাগের ছাত্র উপদেষ্টা তাসমিন জাহান।

আরো পড়ুন:  বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির নির্বাচন কাল

পুরস্কার বিতরনের সময় মার্কেটিং বিভাগের চেয়ারম্যান বঙ্কিম চন্দ্র সরকার বলেন, “আমি প্রথমত অভিনন্দন জানাচ্ছি দশম ব্যাচকে, কারণ তারা বিভাগের কনিষ্ঠ ব্যাচ হয়েও ফাইনাল ম্যাচ খেলার সুযোগ করে নিতে পেরেছে। এবং অনেক অনেক অভিনন্দন মার্কেটিং নবম ব্যাচকে, কারণ তারা অনেক ভাল খেলে ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আশাকরি শিক্ষার্থীদের প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণে ভবিষ্যৎতেও আমরা এরকম টুর্নামেন্ট সফলভাবে আয়োজন করতে পারব।”

আরো পড়ুন:  দীর্ঘদিনের অপেক্ষার অবসান, অবশেষে মূল সনদ পেতে যাচ্ছে বেরোবির শিক্ষার্থীরা
পুরস্কার গ্রহণ শেষে ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট হওয়া মাহিন বলেন, খেলায় আমি আমার সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি। শুরু থেকেই আমাদের প্রত্যাশা ছিল যে, আমরা চ্যাম্পিয়ন হব। সেই লক্ষ্য কে সামনে রেখেই আমরা খেলার চেষ্টা করেছি। আসলে আমার একার পক্ষে এটা সম্ভব ছিলনা। আমি মনে করি আমাদের টিম কম্বিনেশন অনেক ভাল ছিল, টিমের সবাই তাদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছে, যার ফলে এই টুর্নামেন্টে আজকে আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পেরেছি। আশা করি, ভবিষ্যতেও এই ধারা আমরা অব্যাহত রাখতে পারব।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles