28 C
Bangladesh
সোমবার, জুন ১০, ২০২৪

রাবিতে যুক্তি তর্কের উৎসব

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়রাবিতে যুক্তি তর্কের উৎসব

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে “বাংলাদেশ স্টুডেন্টস ফর লিবার্টির” আয়োজনে আন্ত বিভাগ বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০২৩ এর ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত ২০ই মে শনিবার এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। তার আগের দিন রোজ শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বমোট ১৬ টি বিভাগ প্রথম রাউন্ডে অংশগ্রহণ করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াজেদ মিয়া একাডেমি ভবনে বিতর্ক প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সালাউদ্দিন সেলিম ।

এরপর ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয় বিকাল ৫ টা ৩০ মিনিটে শহীদ মিনার সংলগ্ন মুক্তমঞ্চে। নক আউট পর্বের মাধ্যমে চুড়ান্ত পর্বে মুখোমুখি হয় আইন ও মার্কেটিং বিভাগ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপ-উপাচার্য মহোদয় জনাব প্রফেসর ড.সুলতান-উল-ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত প্রক্টর মহোদয় জনাব প্রফেসর ড. আসাবুল হক এবং সহযোগী অধ্যাপক জনাব সাদিকুল ইসলাম সাগর সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন:  শিক্ষার্থীদের গাছে ওঠা নিয়ে রাবি প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

উক্ত আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ স্টুডেন্টস ফর লিবার্টির সিনিয়র লোকাল কোর্ডিনেটর জনাব রাজু আহমেদ। বিতর্ক শুরুর ৩০ মিনিট আগে বিষয় নির্ধারণ করা হয় “এই সংসদ বিশ্বাস করে, ‘বাজার নগরবাদ’ আবাসন সংকট এবং পরিবেশগত অবক্ষয়কে ত্বরান্বিত করবে।”‌ এই বিষয়ে সরকারি দলে নাইম হক, সাধন মুখার্জি, মাসুদ রানা এবং বিরোধী দলে জিহাদ হোসেন, জারিন সাবাহ, হাসিব শান্ত অংশগ্রহণ করে। বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন অভিজিৎ রয় (সহযোগী অধ্যাপক, নৃবিজ্ঞান বিভাগ, রাবি), জান্নাতুল মাওয়া (সভাপতি,রুয়েট ডিবেটিং ক্লাব), আহনাফ তানজিদ (রিসার্চ এন্ড ওয়ার্কশপ সেক্রেটারি,রুয়েট ডিবেটিং ক্লাব)। সময় নিয়ন্ত্রয়ক হিসেবে ছিলেন রহমান ফারজানা। দুর্দান্ত একটি বিতর্ক শেষে বিজয়ী দল হিসেবে ঘোষণা করা হয় সরকারি দলকে অর্থাৎ আইন বিভাগ বিজয়ী হয়।

আরো পড়ুন:  রাবি ২০২২-২৩ ভর্তি পরীক্ষায় বিজ্ঞান ইউনিটে পাশের হার ২৯.৬১, মানবিক ইউনিটে ২৬.৬২ 

অত্যন্ত হৈ হুল্লোড় ও আনন্দমুখর পরিবেশে তারা এই অর্জন উৎযাপন করে এবং সতীর্থদের শুভেচ্ছা দিতে থাকে। সেরা বিতার্কিক হিসেবে পুরস্কার গ্রহন করে আইন বিভাগের বিতার্কিক সাধন চন্দ্র। জয়ী দলকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা, ট্রফি, ক্রেস্ট এবং সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। পরাজিত দলকে নগদ তিন হাজার টাকা, ট্রফি, ক্রেস্ট এবং সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তব্যে মাননীয় উপ উপাচার্য বলেন, একজন যৌক্তিক মানুষ হয়ে উঠার জন্য বিতর্ক করা উচিত এবং দেখা উচিত। সেই সাথে তিনি আরো বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তবুদ্ধির চর্চা করার জন্য বিতর্ক একটি অন্যতম মাধ্যম। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত থেকে স্বতস্ফূর্তভাবে অত্যন্ত প্রাণবন্ত ও চমৎকার একটি বিতর্ক প্রতিযোগিতা উপভোগ করেন। স্টুডেন্টস ফর লিবার্টি মূলত নাগরিকের মুক্ত স্বাধীন তত্ত্ব গুলো ছড়িয়ে দিতে বিশ্বব্যাপী কাজ করছে। বর্তমানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চার জন লোকাল কোর্ডিনেটর আছেন। তারা হলেন- শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের রাজু আহমেদ, ইন্সটিটিউট অফ এডুকেশন এন্ড রিসার্চ বিভাগের সিরাজুম মনিরা ও মিনহাজ নাফি এবং মার্কেটিং বিভাগের ফায়াজ হুসাইন। তারাই সেই তত্ত্ব গুলো ছড়িয়ে দিচ্ছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles